ঝিনাইদহে গৃহবধু শাপলার লাশ নিয়ে বিক্ষোভ ও মানব বন্ধন

২৮

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহে গৃহবধু শাপলার লাশ নিয়ে বিক্ষোভ ও মানব বন্ধন করেছে নিহতের পরিবার ও আত্বীয় স্বজন। শনিবার দুপুরে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বাসীদেবপুর গ্রামে বিক্ষোভ করে বাজারে গিয়ে মানববন্ধন করে। নিহতের পিতা সিরাজ জানান, তিন বৎসর পুর্বে সদর উপজেলার মথুরাপুর গ্রামের নাসির মন্ডলের ছেলে নয়নের সাথে বড় মেয়ে শাপলার বিয়ে হয়। এরপর থেকে শ্বশুর মেয়ে কুপ্রস্তাব দিত। একবার সে বাড়ীতে এসে আর যেতে চায়না। পরে তাকে বুঝিয়ে শ্বশুর বাড়ী পাঠানো হয়। এরপর গত বুধবার শাপলার শ্বাশুরী মেয়ে বাড়ী গেলে শ্বশুর জোরপুর্বক ধর্ষন করতে গেলে চিৎকার করলে প্রতিবেশীরা চলে আসে। এঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে জামাই নয়ন মেয়েকে নির্যাতন করে ঘরের আড়ার সাথে ঝুলিয়ে রাখে। প্রতিবেশীরা উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এরপর অবস্থার অবনতি হলে ঢাকায় রেফার্ড করে ডাক্তার। পরে বৃহস্পতিবার রাতে মারা যায়। মহিলা মেম্বর লাকী খাতুন জানান, শাপলা নরম স্বভাবের মেয়ে ছিল। আগেও এমন অত্যাচার করলেও মুখ বুঝে সহ্য করত। লাশটি শনিবার পৌছালে গ্রামের লোকজন লাশ নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে ও বাসুদেবপুর বাজারে গিয়ে মানববন্ধন করে। ঝিনাইদহ সদও থানার ওসি জানান, এঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

ফেইসবুক