বীরগঞ্জে অপহরণের ২ মাস পর শিশু উদ্ধার

১১৬

দিনাজপুরের বীরগঞ্জের এক বুদ্ধি প্রতিবন্ধীর তিন মাসের শিশু অপহরণের দুই মাস পর জামালপুর থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

উপজেলার পাল্টাপুর ইউনিয়নের ভোগডোমা গুচ্ছগ্রামহাট এলাকার আবদুল জলিলের বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কন্যা পিয়ারা খাতুন (১৫) কে বিবাহের প্রলোভন দেখিয়ে প্রতিবেশী ৩ সন্তানের জনক দুলু মিয়া ধর্ষণ করে। পরে ঘটনাটি জানাজানির একপর্যায়ে প্রতিবন্ধী পিয়ারা গর্ভবতী হয়। পরে দুখু মিয়া বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় তার বিরুদ্ধে মামলা হয়। এদিকে প্রতিবন্ধী পিয়ারা কন্যা সন্তানের জন্ম দেয়।

গত ১৮ ফেব্রুয়ারি সকালে খানসামা উপজেলার পশ্চিম বাসুলী গ্রামের আছমত আলীর স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগম বাচ্চাটিকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। বাচ্চাটিকে না পেয়ে ১১মার্চ বুদ্ধি প্রতিবন্ধী পিয়ারা পিতা আবদুল জলিল বাদী হয়ে শিশু অপহরণ মামলা করে।

অপহরণকারী হোসনেয়ারা বেগমকে আটক হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী পুলিশের একটি টিম জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার ঝালুরচর এলাকার মৃত মকবুল হোসেনের পুত্র শাহাজান আলীকে গ্রেফতার করে অপহৃত ৩ মাসের শিশুটিকে উদ্ধার করে বীরগঞ্জ থানায় নিয়ে আসে।

 

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

ফেইসবুক