ব্রিস্টলে বৃষ্টি, বাংলাদেশ-শ্রীলংকা ম্যাচের টস হতে দেরি

নিউজদেশবাংলা ডেক্স::  বেরসিক বৃষ্টির কারণে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ম্যাচটি মাঠে গড়ানো নিয়ে শঙ্কা সৃষ্টি হয়েছে। যদিও কিছুক্ষণ আগে আইসিসির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৩টায় মাঠ পর্যবেক্ষণ করবেন ম্যাচ রেফারি। পর্যবেক্ষণের ফল ইতিবাচক হলেই টসের সময় ঘোষণা করা হবে। তবে আবহাওয়া রিপোর্টের খবর অনুযায়ী ম্যাচটি পরিত্যক্ত হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি!

মঙ্গলবার সকাল থেকে ব্রিস্টলের আকাশে চলছে মেঘ-বৃষ্টির লুকোচুরি খেলা। শহরের আকাশ ঘন কালো মেঘে ঢেকে। সঙ্গে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি পড়ছিল গতকাল রাত থেকেই। সকালে বৃষ্টি কমলেও ঠাণ্ডার তীব্রতা কমেনি। বৃষ্টির সঙ্গে বয়ে যাচ্ছে ঠাণ্ডা বাতাস। এখনো কভারে ঢাকা পিচ ও আশপাশের আউটফিল্ড।

ব্রিস্টলের আবহাওয়া বুলেটিনে সোমবারই জানানো হয়েছিল, মঙ্গলবার সারাদিন বৃষ্টি হতে পারে। আবহাওয়ার পূর্বাভাস সত্যি হলো।

ব্রিস্টল স্টেডিয়ামের স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করেন বাংলাদেশী প্রবাসী রুকসানা আহমেদ। সাত বছর ধরে ব্রিস্টলে বসবাস করেন তিনি। তিনি জানান, ব্রিস্টলের যা অবস্থা তাতে করে ম্যাচ মাঠে গড়ানোর কোনো সম্ভাবনা নেই। এমন অবস্থায় সারাদিনই গুমোট থাকে পরিবেশ। মাঝে মাঝে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি ঝরবে।

বৃষ্টির কারণে এখনো মাঠে আসেনি কোনো দলই। বিসিবির মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম জানিয়েছেন, আইসিসি বাংলাদেশ দলকে স্থানীয় সময় ১০টা ৪০ মিনিটে মাঠে আসতে বলেছে। সাড়ে দশটার পরিদর্শন শেষে টসের ঘোষণা আসলেও টস হতে হতে সাড়ে ১১টা। সবমিলিয়ে তাই বলাই যায় খেলা শুরু হলেও নির্ধারিত সময়ে হচ্ছে না।

এদিকে ম্যাচটি দেখতে প্রবাসী বাংলাদেশী সমর্থকরা বিভিন্ন গেটে ভিড় করছেন বৃষ্টি থাকার পরেও। খেলা মাঠে গড়ালেই কেবল দর্শকদের মাঠে ঢুকতে দেয়া হবে।

সারাদিন যদি বৃষ্টি হয়, তা হলে পয়েন্ট ভাগাভাগিকে সান্ত্বনা পুরস্কার হিসেবে মেনে নিতে হবে মাশরাফিদের। কিন্তু সেটি হবে টাইগারদের জন্য ম্যাচ হারার মতোই ব্যাপার। কারণ তিন ম্যাচে দুই পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশের জন্য আজকের ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই।

আবহাওয়া নিয়ে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে অধিনায়ক মাশরাফির কপালেও। সোমবার ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, প্রথম তিন ম্যাচের একটি ভেসে গেলে অত সমস্যা হতো না। তবে এ ম্যাচটা পণ্ড হলে বড় ক্ষতি হয়ে যাবে বাংলাদেশের। আশা করছি, আবহওয়া পূর্বাভাস যাই বলুক-ম্যাচটা যেন হয়।

শ্রীলংকার বিপক্ষে সবশেষ তিন দেখায় জিতেছে বাংলাদেশ। নিদাহাস ট্রফিতে দুই ম্যাচে এবং এশিয়া কাপে লংকানদের হারিয়েছেন টাইগাররা। তবে বিশ্বকাপে তিনবারের দেখায় একবারও জয় পাননি তারা। এ ম্যাচে জিততে হলে তাই রেকর্ড ব্রেক করতে হবে। এ ক্ষেত্রে সিনিয়র-জুনিয়রদের সম্মিলিত দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের বিকল্প নেই।

 

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

ফেইসবুক