রহস্যজনকভাবে ইমামের কক্ষে ৩ শিশুর মৃত্যু : এলাকায় তোলপাড়, আতঙ্ক

১৬

নিউজ ডেস্ক:: চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণে মসজিদের ইমামের কক্ষ থেকে তিন শিশুর লাশ উদ্বারে এলাকায় তোলপাড় সুষ্টি হয়েছে।উদ্ধার করা তিন শিশু হলো আব্দুল্লাহ আল নোমান (৫), রিফাত হোসেন (১৫) ও মো. ইব্রাহীম (১২)।

শুক্রবার বিকেলে মতলব পৌরসভার পূর্ব কলাদি জামে মসজিদের ইমামের কক্ষ থেকে এই তিন শিশুর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

একসঙ্গে তিন শিশুর মৃত্যুর ঘটনা ‘রহস্যজনক’ মনে করছে পুলিশ। শনিবার (৩১ আগস্ট) হতভাগা এই তিন শিশুর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। এমন মৃত্যুর ঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

নিহত নোমান পূর্ব কলাদি জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা জামাল উদ্দিনের ছেলে, রিফাত হোসেন মতলব দক্ষিণের উত্তর নুলুয়া গ্রামের জসিম উদ্দিনের ছেলে এবং মো. ইব্রাহীম একই নাটশাল গ্রামের মৃত কামাল পাটওয়ারীর ছেলে। এর মধ্যে রিফাত ও ইব্রাহীম মতলব দক্ষিণের ভাঙারপাড় মাদ্রাসার ছাত্র। এদের মধ্যে রিফাত জুমার নামাজের আজান দিয়েছিল। যে কক্ষ থেকে তিন শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে, সেখানে পুরোনো একটি আইপিএস ও ব্যাটারি ছিল। যা থেকে উৎকট গন্ধ বের হচ্ছে। উপস্থিত কেউ কেউ (নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) ধারণা করছেন, বন্ধ কক্ষে এসিডের উৎকট গন্ধে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে ওই তিন শিশুর মৃত্যু হতে পারে।

ইমাম জামাল উদ্দিন জানান, ৫ বছরের শিশু সন্তান নোমানকে তার কক্ষে রেখে নামাজ পড়াতে যান। নামাজ শেষে তার কক্ষে প্রবেশ করতে গেলে দরজা ভিতর থেকে বন্ধ পান। পরে পাশের জানালা দিয়ে দেখেন তার সঙ্গে আরো ২ শিশু অচেতন অবস্থায় পড়ে আছে। এসময় দরজা ভেঙে ইমামসহ উপস্থিত মুসল্লিরা অচেতন অবস্থায় ৩ শিশুকে মতলব দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রথমে নোমান ও রিফাতকে মৃত বলে ঘোষণা করেন এবং কিছুক্ষণ পরে ইব্রাহীম মারা যায়।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

ফেইসবুক